৫ আগস্ট আলোচিত কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজের লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিজস্ব প্রতিবেদক

অবশেষে লেনদেন শুরু করতে যাচ্ছে পুঁজিবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত হওয়া আলোচিত কোম্পানি কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। ৫ আগস্ট দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন শুরু করবে কোম্পানিটি।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, ‘এন’ ক্যাটাগরিভুক্ত কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজের ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ট্রেডিং কোড “COPPERTECH” এবং কোম্পানি কোড: ১৩২৪৭।

এর আগে ২৪ জুলাই ১০ কার্যদিবসের মধ্যে কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজকে তালিকাভুক্ত করার জন্য ডিএসইকে নির্দেশ দিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। আর ২৩ জুলাই কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজকে তালিকাভুক্ত করার জন্য সময় চেয়ে বিএসইসিতে চিঠি দেয় ডিএসই কর্তৃপক্ষ। আইনগতভাবে কোম্পানিটির তালিকাভুক্তির জন্য নির্ধারিত সময় অনেক আগেই পার হয়ে যাওয়ায় এই সময় আবেদন করা হয়। আইনগতভাবে কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজকে তালিকাভুক্ত করার সুযোগ না থাকায় গত ২২ জুলাই শর্তসাপেক্ষে কোম্পানিটিকে তালিকাভুক্তির অনুমোদন দেয় ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ। ডিএসই’র তালিকাভুক্তির নীতিমালা অনুযায়ী, কোনো কোম্পানি প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে টাকা উত্তোলন করলে ওই কোম্পানির আইপিও সাবস্ক্রিপশন (আইপিও আবেদন গ্রহণ) শেষ হওয়ার ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে তালিকাভুক্ত হতে হবে। তবে কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজের ক্ষেত্রে সেই সময় অনেক আগেই পার হয়ে গিয়েছিল।

কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ পুঁজিবাজার থেকে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করার অনুমোদন পায়। এ টাকা উত্তোলনে ৩১ মার্চ থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত কোম্পানিটির আইপিওতে আবেদন গ্রহণ করা হয়। ফলে চলতি বছরের ২৬ মে’র মধ্যে কোম্পানিটি ডিএসইতে তালিকাভুক্তির বাধ্যবাধকতা ছিল। কিন্তু ডিএসই পর্ষদ অনুমোদন না দেয়ায় কোম্পানিটির তালিকাভুক্তি আটকে যায়। এরপর ডিএসই’র পর্ষদ কোম্পানিটিকে তালিকাভুক্তির জন্য ২৩ জুন পর্যন্ত সময় দিয়ে বিএসইসির কাছে দিক নির্দেশনা চেয়ে চিঠি দেয়। তবে বিএসইসি ওই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে কোনো দিকনির্দেশনা বা পরামর্শ দেয়া থেকে বিরত থাকে।

গত ১১ জুলাই কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজের তালিকাভুক্তির সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য ম্যানেজমেন্টের কাঁধে দায়িত্ব দেয় পরিচালনা পর্ষদ। এর আলোকে ম্যানেজমেন্ট কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজের তালিকাভুক্তির বিসয়ে আইন-কানুন পর্যালোচনা করে। যা ডিএসইর সভায় দাখিল করা হয়। যা যাছাই-বাছাই শেষে কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজকে শর্তসাপেক্ষে তালিকাভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসইর পর্ষদ।

উল্লেখ্য, গত ২৩ মে আর্থিক হিসাবে অসঙ্গতির অভিযোগে কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজকে তালিকাভুক্ত না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ। আইপিওতে কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এমটিবি ক্যাপিটাল লিমিটেড।

Facebook Comments