শিশুকে হত্যা করে কান ও লিঙ্গ কেটে নিলো দুবৃত্তরা

তুহিন মিয়া নামে সাড়ে পাঁচ বছর বয়সের শিশুকে হত্যা করে তার কান ও লিঙ্গ কেটে নিয়ে গেছে দুবৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউরা গ্রামে।

শিশুটিকে হত্যা করে কদমগাছের ডালে ঝুলিয়ে রাখা হয় তার মৃতদেহ। তার পেটে ঢোকানো ছিল দুটি ছুরি।

সোমবার সকলে পুলিশ গিয়ে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে। তুহিনের বাবা আবদুল বাছির একজন কৃষক। মা মনিরা বেগম। আবদুল বাছিরের তিন ছেলে ও এক মেয়ে। এর মধ্যে তুহিন দ্বিতীয়। রোববার রাত আড়াইটার দিকে বাছিরের এক ভাতিজি তাঁদের ঘুম থেকে ডেকে তুলে বলে যে তাঁদের ঘরের দরজা খোলা। এরপর সবাই জেগে উঠে দেখেন তুহিন নেই। তখন প্রতিবেশীদেরও ডেকে তোলা হয়। শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। একপর্যায়ে বাড়ির পাশে রাস্তায় গিয়ে রক্ত দেখতে পান তাঁরা। কিছুটা সামনে গিয়ে রাস্তার পাশে কদমগাছে তুহিনের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান।

দিরাই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবু তাহের মোল্লাহ গণমাধ্যমকে জানান পুলিশ ঘটনাস্থলে আছে। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুত করা হচ্ছে। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

Facebook Comments