ভারত ও বাংলাদেশের সম্পর্ক ‘ব্যতিক্রমী ঘনিষ্ঠ’

ভারত সুস্পষ্টভাবে বলেছে, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ‘ব্যতিক্রমী ঘনিষ্ঠ’ এবং উভয় দেশই তাদের সম্পর্ক গড়ার ক্ষেত্রে পারস্পরিক সংবেদনশীলতা ও পারস্পরিক শ্রদ্ধার বিষয়টিকে উপলব্ধি করে।

গতকাল সাপ্তাহিক ভার্চুয়াল মিডিয়া ব্রিফিং-এ ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, ‘আপনারা অবশ্যই ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাম্প্রতিক মন্তব্য দেখেছেন, যেখানে তিনি বলেছেন, এই অঞ্চলে ভালো প্রতিবেশীসুলভ সম্পর্কে বাংলাদেশ রোল মডেল।’

অযোধ্যাতে রাম মন্দির নির্মাণের বিষয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনের সাম্প্রতিক মন্তব্যের বিষয়ে দু’জন ভারতীয় সাংবাদিক তার দৃষ্টি আকর্ষণ করে এই ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে চাইলে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র একথা বলেন। আগামী ৫ আগস্ট থেকে অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ শুরু হবে ।

গত ২৭ জুলাই ভারতীয় সংবাদপত্র ‘হিন্দু’তে প্রকাশিত এই সাক্ষাৎকারে মোমেন বলেছেন, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ফাটল ধরাতে পারে এমন কোনও পদক্ষেপ নেয়া থেকে ভারতের বিরত থাকা উচিত।

ভারত বাংলাদেশকে ১০টি ‘সেকেন্ড হ্যান্ড’ ডিজেল লোকোমোটিভ দিয়েছে বলে একটি বাংলাদেশী সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনের বিষয়ে অপর এক প্রশ্নের জবাবে শ্রীবাস্তব বলেন, ‘জরুরি প্রয়োজনে বাংলাদেশের অনুরোধের প্রেক্ষিতে আমাদের মজুত থেকে এই লোকোগুলো সরবরাহ করা হয়েছে।’

বাংলাদেশে ভারতীয় হাই কমিশনার গত চার মাস ধরে বারবার চেষ্টা করা সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাৎ পাননি বলে একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের এই মুখপাত্র বলেন, একই সংবাদপত্রে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিষয়ে একটি ‘মনগড়া’ প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল।

Spread the love

Facebook Comments