ব্রিজের অভাবে শিক্ষার্থী ও গ্রামবাসীদের দুর্ভোগ

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর কচাকাটার সুবলপাড়ে একটি ব্রিজের অভাবে চরম দূর্ভোগে শিক্ষার্থীসহ ৩ গ্রামের মানুষ। জেলার এ উপজেলার নদীবেষ্টিত কচাকাটা থানার কেদার ইউনিয়নের সুবলপাড় নদীর উপর একটি ব্রিজ না থাকায় শামছুলেরচর, বিষ্ণুপুর, সতিপুরী ৩ টি চরের প্রায় ২৫ হাজার মানুষ ঝুঁকিপূর্ণ বাঁশ বেধে দিয়ে পারাপার হতে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন।

আলহাজ আব্দুল মদিজ ব্যাপারী, মজনু মিয়া, বাদল সাহা বলেন, ব্রিজটি নির্মাণ না হওয়ায় তারা শহরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে না। উৎপাদিত কৃষি পণ্য শহরে বাজারজাত করতেও ব্যাপক অসুবিধার সৃষ্টি হয়।

অপরদিকে মেয়েরা শিক্ষার্থী জীবন থেকে ঝরে যাওয়ায় বাল্য বিবাহের প্রবণতা বেড়ে যাচ্ছে। গর্ভবতী মায়েদের চিকিৎসা বা জরুরী রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া খুব কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। ব্রিজটি নির্মাণ করার দাবি জানান।

সুবলপাড়ে উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফীক রহমান বলেন, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নদী পার হয়ে লেখাপড়া করতে আসে। বর্ষা মৌসুমে বিদ্যালয়ে আসা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যায়। চরের শিক্ষার্থীরা বছরের অধিকাংশ সময় বিদ্যালয়ে উপস্থিত হতে পারে না। চরের মানুষের উৎপাদিত কৃষি পণ্য হাট-বাজারে বেচা-কেনা করতে দুর্ভোগের শিকার ও জীবনচিত্র বেদনাবিধুর। চরের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিছিন্ন পারাপারের ভরসা বাঁশ বেধে দিয়ে। তাদের সুখে-দুখে পাশে দাড়ানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।

 

Facebook Comments