বুঝে শুনে খান নুন

কেউ বলে লবণ আবার কেউ বলে নুন। যে যাই বলুক না কেন এই নুনেরও রয়েছে নানান গুণ। লবন ছাড়া খাবার তো কল্পনাই করা যায় না। শুধু খাবারের স্বাদের জন্যই নয়, শরীরের অনেক সমস্যা মেটাতেও লবন কার্যকরী ভূমিকা রাখে। পাহাড়, সমুদ্র, খনি থেকে নানা ধরনের লবন পাওয়া যায়। কোনওটা আয়োডিনের ঘাটতি মেটায়। কোনওটা আয়রনের। কোন লবন কীভাবে উপকার করে আমাদের? কোনটা সবার সেরা, আসুন জেনে নিই…

টেবিল সল্ট
সর্বাধিক ব্যবহৃত গৃহস্থালির লবণ টেবিল লবণ। সমুদ্রের পানি থেকে তৈরি এই লবণ পরিশ্রুত করে রান্নায় ব্যবহার করা হয়।। এতে সবচেয়ে বেশি পরিমাণে অ্যান্টি-কেকিং এবং আয়োডিন থাকে। তাই আয়োডিনের ঘাটতি মেটাতে অনেক সময়েই রোগীকে এই লবণ পাতে খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে বলা হয়। রক্তচাপ নেমে গেলে অনবরত বমি পায়খানা হতে থাকলে শরীরে লবণের ঘাটতি মেটাতে পানিতে মিশিয়ে লবণ খাওয়ার পরামর্শ দেন ডাক্তার।

কোশের সল্ট
এর মধ্যে আয়োডিন থাকে না। তবে এতে অ্যান্টি-কেকিং অ্যাডিটিভ থাকতে পারে। এটি সারা বিশ্বে রান্নার অন্যতম উপকরণ হিসেবে ব্যবহৃত হয়। বড়ো দানা যুক্ত এই লবণ সাধারণত মাংস ধুতে বা ম্যারিনেট করতে ব্যবহৃত হয়।

রক সল্ট
রক সল্ট বা বিট লবণ আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় বহুল ব্যবহৃত। সালফার থাকা এর গন্ধ ঝাঁঝাঁলো। সামগ্রীর কারণে শক্ত গন্ধ রয়েছে। এটি হজমশক্তি বাড়ায়। পেট ফাঁপা এবং ফুলে যাওয়া থেকে মুক্তি দেয়।

হিমালয়ের গোলাপি লবণ
হিমালয় গোলাপী লবণও এক ধরণের পাহাড়ি লবণ। নির্দিষ্ট খনিজের উপস্থিতিতে এর রং গোলাপি। তবে এতে আয়োডিনের অভাব রয়েছে। গোলাপি লবণ “salt lamps” সাজাতে কাজে লাগে। শরীরের পক্ষেও উপকারি।

আলায়া লবণ
আলায়া লবণ হাওয়াইয়ান লাল লবণ হিসাবেও পরিচিত। সমুদ্রের পানির সঙ্গে আয়রন অক্সাইড মিশে এই লবণ তৈরি হয়। এই লবণ দিয়ে হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের লোকেরা প্রাচীন সংস্কার মেনে বাড়ি এবং মন্দির পরিষ্কার ও শুদ্ধ করেন। সত্যিকারের হাওয়াইয়ান লাল লবণ প্রচণ্ড দামি। এতে শরীরে আয়রনের অভাব মেটে।

মনে রাখবেন
সব ধরনের লবণের কিছু উপকার রয়েছে। থাইরয়েড গ্রন্থির ক্ষরণ সঠিক মাত্রায় করতে আয়োডিনযুক্ত লবণ বেশি উপকারি। আবার রক্তচাপ এবং হৃদপিন্ড ভালো রাখতে পরিমিত লবণ খেতে হবে। একজন সাধারণ ব্যক্তির প্রতিদিন ১ চা চামচ লবণ খেতে পারেন। উচ্চ রক্তচাপ থাকলে সিকি চামচ লবণ খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এই তথ্য অনুসরণের আগে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে নেবেন কিন্তু।

Facebook Comments