ধুনটে ছেলের দেয়া আগুনে দগ্ধ মায়ের মৃত্যু

Avatar

এম. এ. আর. শায়েল

বগুড়ার ধুনটে ছেলের দেয়া আগুনে দগ্ধ মা খুকি খাতুন (৬২) মারা গেছেন। রবিবার রাতে বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ধুনট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, নেশার টাকা না পেয়ে বিকেলে মায়ের হাত-পা বেঁধে শরীরে আগুন দেয় ছেলে খোকন মন্ডল (৩৫)। পরে দগ্ধ মাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান স্থানীয় লোকজন।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তিনি মারা যান। ওই মায়ের মরদেহ বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার পর অভিযুক্ত ছেলে খোকন মন্ডলকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন স্থানীয়রা। ফলে খোকন গুরুতর আহত হয়েছে। তাই তাকে পুলিশি হেফাজতে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

রোববার বিকেলে মা খুকি খাতুনের কাছে মাদক সেবনের জন্য টাকা চায় খোকন মন্ডল। দীর্ঘ সময় মায়ের কাছে টাকা চেয়ে ব্যর্থ হয়ে মাকে ঘরের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রাখে সে। একপর্যায়ে মায়ের শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় খোকন। এ সময় খুকি খাতুনের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন।

পরে তাকে দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান স্থানীয়রা। এ সময় গণপিটুনি দিয়ে ছেলে খোকনকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

Facebook Comments