অপহৃতা কিশোরীকে নিয়ে মন্তব্য, শিক্ষামন্ত্রী বরখাস্ত

Avatar

এম. এ. আর. শায়েল

পনেরও বছরের এক কিশোরী অপহরণের শিকার হওয়ার পর দেশটির শিক্ষামন্ত্রী একাতেরিনা অ্যান্দ্রনেসকু বলেছিলেন, ‘ওই কিশোরীর শেখা উচিত ছিল, অপরিচিত কারো গাড়িতে চড়া ঠিক নয়।’

আর এতেই ক্ষুব্ধ হয়েছেন রোমানিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভায়োরিকা ডেনসিলা। একজন অপহৃত কিশোরীর ব্যাপারে এমন মন্তব্যকে ‘অসঙ্গতিপূর্ণ’ ও ‘বোঝার অভাব’ বলে উল্লেখ করেন রোমানিয়ার প্রধানমন্ত্রী। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল শুক্রবার শিক্ষামন্ত্রী অ্যান্দ্রনেসকুকে মন্ত্রীসভা থেকে বহিস্কারও করেন তিনি। সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে বুধবার রোমানিয়ার রাজধানী বুখারেস্টের পশ্চিমাঞ্চল থেকে অপহরণ করা হয় কিশোরী আলেক্সান্দ্রা ওসেসানুকে।

এরপরই একটি টিভি শোতে শিক্ষামন্ত্রী একাতেরিনা অ্যান্দ্রনেসকু বলেছিলেন, ‘তার (অপহৃত কিশোরী) শেখা উচিত ছিল, অপরিচিত কারো গাড়িতে চড়া ঠিক নয়।’

প্রধানমন্ত্রী ভায়োরিকা এ মন্তব্যের প্রতিবাদ করে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে লেখেন, “শিক্ষামন্ত্রীর মন্তব্য ‘বোঝার ভুল’ ও ‘সঙ্গতিপূর্ণ’। এটি একটি দায়িত্বহীন মনোভাব। এটি কোনোভাবেই সরকারের অবস্থানকে প্রতিফলিত করে না। আমি চাই না, আমার নেতৃত্বাধীন মন্ত্রীসভায় তাঁকে সম্পৃক্ত রাখতে।”

এর আগে অপহরণের শিকার হওয়া আলেক্সান্দ্রা জরুরি সহায়তার জন্য ১১২ নম্বরে ফোন করেছিল। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে কোনো সহায়তা পায়নি সে। এ ঘটনায় দায়িত্বহীনতার অভিযোগে রোমানিয়ার পুলিশ প্রধান ইওন বুডাকে বরখাস্ত করা হয়।

এর আগে বুধবার ওই অপহরণের ব্যাপারে ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করতে না পারায় পদত্যাগ করেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিকোলাস মোগা।

এদিকে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৬৫ বছর বয়সী ঘোরঘে ডিনকা নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। আটক ওই ব্যক্তি বলছেন, অপহরণের পর আলেক্সান্দ্রাকে খুন করেছেন তিনি। এ ছাড়াও গত এপ্রিল নিখোঁজ হওয়া ১৮ বছর বয়সী লুইজা মেলেনকুকেও খুন করেছেন বলে দাবি করেন ডিনকা।

আটক ডিনকার আইনজীবী আলেকজান্দ্রু বোগদান রোমানিয়ার বার্তা সংস্থা অ্যাগেরপ্রেসকে বলেন, ‘ডিনকা তাঁর অপরাধ স্বীকার করেছেন।

Facebook Comments